Home » Breaking News » রোহিঙ্গাদেরকে বাংলাদেশ চলে যাওয়ার জন্য আরাকানে প্রশাসনের মাইকিং

রোহিঙ্গাদেরকে বাংলাদেশ চলে যাওয়ার জন্য আরাকানে প্রশাসনের মাইকিং

আরাকান টিভি : 

বাংলাদেশ-বার্মার সীমান্তের নো-ম্যান্স ল্যান্ডে গত কয়েক মাস ধরে আশ্রয় নেয়া প্রায় ৬ হাজার রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশ চলে যাওয়ার জন্য মাইকিং করছে সেনা ও পুলিশ প্রশাসন । তুমব্র সীমান্তের জিরো লাইনে আশ্রিতদের  দেশ ছাড়ার নির্দেশনায় বলা হচ্ছে, ‘তোমরা (রোহিঙ্গা) আমাদের সঙ্গে কথা বলবে না। তোমরা আমাদের কেউ না। আমাদের ভূখণ্ড ছেড়ে বাংলাদেশে চলে যাও।’

আজ রোববার সকালেও জিরো লাইন থেকে রোহিঙ্গাদের সরে যেতে বার্মার সেনাবাহিনী কাটাতারের বেড়ার কাছে এসে মাইকিং করে।

এ ঘটনার পর রোহিঙ্গাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তবে বাংলাদেশের কর্মকর্তাদের মতে , জিরো লাইন স্পর্শকাতর হওয়ায় এসব রোহিঙ্গাদের কোথাও সরিয়ে নেয়া সম্ভব হচ্ছে না।

গত বছরের ২৫ আগস্টের পর সেনা তান্ডবের সময় প্রথম যে দলটি বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারেনি, তারা নো-ম্যান্স ল্যান্ডে আশ্রয় নেয় ।  পরবর্তীতে সেনাবাহিনীর অভিযানের মুখে পালিয়ে বাংলাদেশে প্রায় ৭ লাখ রোহিঙ্গা আশ্রয় নেয়।

রোহিঙ্গারা জানান, গত এক সপ্তাহ ধরে বর্মী সেনাবাহিনী ও বিজিপি প্রায়ই ফাঁকা গুলি করছে। তুমব্র সীমান্তের ওপারে ঢেকুবুনিয়া এলাকায় নতুন করে বাড়িঘরে আগুন দিচ্ছে।

এই রোহিঙ্গারা আরও জানান, কাটাতারের বেড়া ঘেষে তাবু টাঙ্গিয়ে সেনাবাহিনীর সদস্যরা অবস্থান নিয়েছে। তারা মাইকিং করছে। ফলে সবার মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কক্সবাজার বিজিবির সেক্টর কমান্ডার কর্নেল আবদুল খালেক বাংলাদেশীয় গণমাধ্যমকে জানান, জিরো লাইনে অবস্থানকারী রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের চাপ দেয়ার বিষয়টি আমরা জেনেছি। আমরা সার্বিক বিষয় পর্যবেক্ষণ করছি।

আরো দেখুন

বার্মিজ সেনাপ্রধানের বিচারের দাবি ব্রিটিশ এমপিদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরাকান টিভি :  রোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে বার্মার সেনাপ্রধানকে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের মুখোমুখি করার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *